ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত হচ্ছে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলা

0

পাবনা প্রতিনিধি : মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে দেশের ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মধ্যে ঘর উপহার দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদের মধ্যে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলায় জমি ও নতুন গৃহ পাচ্ছেন ১৪২টি পরিবার। এর মাধ্যমে সাঁথিয়া উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা হবে।

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে সাঁথিয়া উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাঁথিয়া উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা (এসিল্যান্ড) মো: মনিরুজ্জামান, সাঁথিয়া পৌর মেয়র মাহবুবুল আলম বাচ্চুু,. উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা খোকন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা সুলতানা শীলাসহ বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান, কাউন্সিলরবৃন্দ ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ হোসেন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন নোয়াখালী বর্তমান লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি উপজেলার চর পোড়াগাছা গ্রামে ভূমিহীন-গৃহহীন, অসহায় ছিন্নমূল মানুষের পুনর্বাসন কার্যক্রমের যাত্রা শুরু করেন। তার দেখানো পথেই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণ করে বঙ্গবন্ধুর জনবান্ধব ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রমগুলো পুনরায় শুরু করেন। তাই তিনি “অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের মডেল সামনে এনে পিছিয়ে পড়া ছিন্নমূল মানুষকে মূলধারায় আনার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৭ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা কক্সবাজার জেলার সেন্টমার্টিনে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেন এবং একই বছর তিনি সারা দেশের গৃহহীন-ভূমিহীন মানুষকে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধিনে শুরু করেন আশ্রয়ণ প্রকল্প ।

সাঁথিয়া উপজেলার ৪টি পর্যায়ে সর্বমোট ৬৯৪টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে গৃহ প্রদানের মাধ্যমে এ উপজেলাকে ভূমিহীন-গৃহ হীনমুক্ত ঘোষণা করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাঁথিয়া উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

আগামী ২২ মার্চ (বুধবার) সকালে চতুর্থ পর্যায়ে ভূমিসহ ৩৯ হাজার ৩৬৫টি ঘর হস্তান্তর করা হবে। গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এই ঘরগুলো হস্তান্তর করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মাধ্যমে মোট ২ লাখ ১৫ হাজার ৮২৭টি ঘর হস্তান্তর করা হবে।

Share.

Leave A Reply